In the Name of Allah, The Most Gracious, Ever Merciful.

Love for All, Hatred for None.

Browse Ahmadiyya Bangla

হযরত ইমাম মাহদী (আঃ)-এর অমৃতবাণী থেকে খিলাফত

আল ওসীয়্যত

অতএব হে বন্ধুগণ! যেহেতু আদি কাল হইতে আল্লাহ্ তাআলার বিধান ইহাই যে, তিনি দুইটি শক্তি প্রদর্শন করেন যেন বিরুদ্ধবাদীগণের দুইটি মিথ্যা উল্লাসকে ব্যর্থতায় পর্যবসিত করে দেখান; সুতরাং এখন ইহা সম্ভবপর নহে যে, খোদা তাআলা তাঁর চিরন্তন নিয়ম পরিহার করিবেন। এজন্য আমি তোমাদিগকে যে কথা বলিয়াছি তাহাতে তোমরা দুঃখিত ও চিন্তিত হইও না। তোমাদের চিত্ত যেন উৎকন্ঠিত না হয়। কারণ তোমাদের জন্য দ্বিতীয় কুদরত দেখাও প্রয়োজন এবং ইহার আগমন তোমাদের জন্য শ্রেয়। কেননা, ইহা স্থায়ী, যাহার ধারাবাহিকতা কিয়ামত পর্যন্ত বিচ্ছিন্ন হইবে না। সেই দ্বিতীয় কুদরত আমি না যাওয়া পর্যন্ত আসিতে পারে না। কিন্তু যখন আমি চলিয়া যাইব, খোদা তখন তোমাদের জন্য সেই ‘দ্বিতীয় কুদরত’ প্রেরণ করিবেন, যাহা চিরকাল তোমাদের সঙ্গে থাকিবে, যেহেতু বারাহীনে আহ্‌মদীয়া গ্রন্থে খোদার প্রতিশ্রুতি রহিয়াছে এবং সেই প্রতিশ্রুতি আমার নিজের সম্বন্ধে নহে বরং উহা তোমাদের সম্বন্ধে। যেমন খোদা তাআলা বলিতেছেনঃ

ম্যাঁয় ইস জামা'তকো জো তেরে পায়রু হ্যাঁয় কিয়ামত তক দোসরো পর গালবা দুঙ্গগা

অর্থাৎ ‘আমি তোমার অনুবর্তী এই জামা'তকে কিয়ামত পর্যন্ত অন্যের উপর প্রাধান্য দিব’ (অনূবাদক)।

সুতরাং তোমাদের জন্য আমার বিচ্ছেদ দিবস উপস্থিত হওয়া অবশ্যম্ভাবী, যেন ইহার পর সেই দিবস আগমন করে যাহা চিরস্থায়ী প্রতিশ্রুত দিবস। আমাদের সেই খোদা প্রতিশ্রুতি পালনকারী, বিশ্বস্ত এবং সত্যবাদী খোদা। তিনি তোমাদিগকে সবকিছু দেখাবেন যা তিনি অঙ্গীকার করিয়াছন। যদিও বর্তমান যুগ পৃথিবীর শেষ যুগ এবং বহু বিপদাপদ রহিয়াছে, যাহা এখন অবতীর্ণ হইবার সময়, তথাপি সেই সমুদয় বিষয় পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত এই দুনিয়া অবশ্যই কায়েম থাকিবে, যাহার সম্বন্ধে খোদা সংবাদ দিয়াছেন। আমি খোদার তরফ হইতে এক প্রকার কুদরত হিসাবে আবির্ভূত হইয়াছি। আমি খোদার মূর্তিমান কুদরত। আমার পর আরও কতিপয় ব্যক্তি হইবেন যাঁহারা দ্বিতীয় বিকাশ হইবেন। অতএব তোমরা খোদার কুদরতে সানীয়ার (দ্বিতীয় কুদরতের) অপেক্ষায় সমবেতভাবে দোয়া করিতে থাক। প্রত্যেক দেশে সালেহীনের জামাতের সমবেতভাবে দোয়ায় নিয়োজিত থাকা বাঞ্ছনীয়। যেন দ্বিতীয় কুদরত আসমান হইতে অবতীর্ণ হয় এবং তোমাদিগকে ইহাও দেখানো হয় যে, তোমাদের খোদা কত মহাপরাক্রমশালী।স্বীয় মৃত্যু সন্নিকটে জানিবে তোমরা জান না যে সেই মুহূর্ত কখন উপস্থিত হইবে। জামাতের পবিত্রচেতা বুযুর্গগণ আমার পরে আমার নামে লোকদের বয়’আত (দীক্ষা) লইবে। .......খোদা তাআলা চাহিতেছেন যে, পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত সকল সাধু প্রকৃতি বিশিষ্ট ব্যক্তিদেরকে, তারা ইউরোপেই বাস করুক বা এশিয়াতেই বাস করুক, তওহীদের প্রতি আকৃষ্ট করেন এবং তাঁর ভক্ত-দাসগণকে এক ধর্মে একত্রিত করেন। ইহাই খোদা তাআলার অভিপ্রায় আর এজন্যই আমি পৃথিবীতে প্রেরিত হইয়াছি।

(আল ওসীয়্যত পু্‌স্তক, সেপ্টেম্বর ১৯৯১ সংস্করণ [বাংলায় অনুদিত], পৃঃ ১৫-১৭)

উপরে চলুন